চৌকাঠ ব্লগ

নতুন জেনারেশন এর ব্লগ

ডেডিকেটেড হোস্টিং কি? কখন এর প্রয়োজন?

/
/
/
177 Views

ছোটখাটো ওয়েবসাইট শুরুর দিকে বেশিভাড় ক্ষেত্রে শেয়ার্ড হোস্টিং সার্ভিস দিয়ে ওয়েবসাইট পরিচালনা করা হয়। কোনো কোনো ক্ষেত্রে ভিপিএস সার্ভার এ ওয়েবসাইট হোস্ট করা হয়। তবে ওয়েবসাইটে যখন সবচেয়ে বেশি নির্ভরযোগ্যতা ও গতির প্রয়োজন, তখন ডেডিকেটেড হোস্টিং ই হবে কার্যকর একটি সমাধান।

ডেডিকেটেড হোস্টিং কি?

ডেডিকেটেড সার্ভার এ একটি সার্ভার এর সকল রিসোর্স একজন ব্যাবহারকারিকেই দেওয়া হয়। এখানে কোনো শেয়ার্ড রিসোর্স এর ব্যাবস্থা নেই। অর্থাৎ একটি সার্ভার এর প্রসেসর, র‌্যাম, স্টোরেজ ও ব্যান্ডউইথ – সবকিছু সেই ব্যাবহারকারির জন্য বরাদ্দ করা থাকে। ডেডিকেটেড হোস্টিং এ ডেডিকেটেড সার্ভার এর মাধ্যমে ওয়েবসাইট হোস্টিং করা হয়। এ ক্ষেত্রে ব্যাবহারকারী চাইলে সার্ভারে শুধুমাত্র এপাচি সার্ভার ব্যাবহার করে ওয়েবসাইট হোস্টিং করতে পারে (মেনুয়ালি) অথবা কোনো একটি হোস্টিং কন্ট্রোল প্যানেল ব্যাবহার করে ওয়েবসাইট হোস্টিং ও ম্যানেজ করতে পারেন। এ ধরনের হোস্টিং এর ক্ষেত্রে শেয়ার্ড রিসোর্স এর ঝামেলা না থাকায় সার্ভিন অনেক নির্ভরযোগ্য এবং দ্রুততম হয়।

ওয়েবসাইট এর গতি বৃদ্ধি

ডেডিকেটেড সার্ভারে হোস্টিং এ শেয়ার্ড হোস্টিং এর তুলনায় ওয়েবসাইটে অনেক ভালো গতি পাওয়া সম্ভব। যেহেতু শেয়ার্ড হোস্টিং এ একই রিসোর্স অনেকগুলো ওয়েবসাইট ব্যাবহার করে, তাই এ ক্ষেত্রে নিজের ওয়েবসাইট বা অন্যান্য ওয়েবসাইট এ ভিজির বেশি হলে তা একই সার্ভারে থাকা অন্য ওয়েবসাইট গুলোর ওপর ও প্রভাব ফেলে। ওয়েবসাইট স্লো হয়ে যায়। ডেডিকেটেড হোস্টিং এ শেয়ার্ড রিসোর্স এর ঝামেলা না থাকায় আপনার ওয়েবসাইট তার পুরো রিসোর্স ব্যাবহার করতে পারবে। তাই শেয়ার্ড হোস্টিং বা ভিপিএস হোস্টিং এর চেয়ে অনেক গুন বেশি ভিজিটর ও ভারি ওয়েবসাইটও খুব সহজেই ডেডিকেটেড হোস্টিংএ পরিচালনা করা যায়।

অধিক নিরাপত্তা

ডেডিকেটেড সার্ভার এর ক্ষেত্রে বিভিন্ন প্যাকেজ ভেদে ওয়েবসাইট এর সিকিউরিটির বিভিন্ন দায়িত্ব এর সার্ভিস প্রভাইডার এর ওপর ন্যাস্ত থাকে। তাই এখানে নিরাপত্তার ঝুঁকি অনেক কম। এছাড়া শেয়ার্ড হোস্টিং এর মতো এখানে অন্য ঝুকিপূর্ন ওয়েবসাইট/ ব্যাবহারকারি থেকে আক্রান্ত হওয়ার কোনো সম্ভাবনা নেই কেননা এই সার্ভারে শুধু একজনই ব্যাবহারকারী।

যদিও ডেডিকেটেট সার্ভার এর দাম শেয়ার্ড হোস্টিং অথবা ভিপিএস সার্ভার এর তুলনায় বেশি, তবে এর সুবিধা গুলো বিবেচনায় আনলে এবং সেই সুবিধা গুলো ব্যাবহার করতে চাইলে ডেডিকেটেড হোস্টিং ই আপনার সবচেয়ে বুদ্ধিদিপ্ত চয়েস হবে।

  • Facebook
  • Twitter
  • Google+
  • Linkedin
  • Pinterest

1 Comments

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This div height required for enabling the sticky sidebar