চৌকাঠ ব্লগ

নতুন জেনারেশন এর ব্লগ

বিভিন্ন রকম এসএসএল সার্টিফিকেট এর মধ্যে পার্থক্য কি?

/
/
/
287 Views
img

এসএসএল (SSL Certificate) সার্টিফিকেট সম্পর্কে যদি আপনার কিছুটা জানা থাকে, তাহলে হয়তো ইতিমধ্যেই আপনি বিভিন্ন ধরনের এসএসএল সার্টিফিকেট দেখেছেন বা এ সম্পর্কে শুনেছে। ওয়েবসাইটের তথ্য ইনক্রিপশন এর ধরনের ওপর ভিত্তি করে বিভিন্ন রকমের এসএসএল সার্টিফিকেট পাওয়া যায়। বিভিন্ন ধরনের সার্টিফিকেট বিভিন্ন লেভেলের নিরাপত্তার নিশ্চয়তা দেয়। ভিজিটররাও ওয়েবসাইটে এসএসএল এর উপস্থিতি দেখে নিজেদের তথ্য নিয়ে কিছুটা নিরাপদ বোধ করতে পারে। এই এসএসএল সার্টিফিকেটগুলো সাধারনত আপনার হোস্টিং প্রোভাইডার থেকেই প্রয়োজন মতো কিনে নিতে পারবেন (যদিও ফ্রি এসএসএল অপশন ও রয়েছে)। আজ আমরা বিভিন্ন ধরনের এসএসএল সার্টিফিকেট সম্পর্কেই জানবো:

ডোমেইন ভ্যালিডেশন সার্টিফিকেট (DV)

এসএসএল সার্টিফিকেট এর মধ্যে এই ধরনের সার্টিফিকেট এর দাম সবচেয়ে কম। যে ওয়েবসাইট গুলো কোনো ইউজার ডাটা নিয়ে কাজ করেনা, শুধু ব্যাসিক ইনক্রিপশন প্রয়োজন, তারা এই ধরনের সার্টিফিকেট ব্যাবহার করে থাকে।

অর্গানাইজেশন ভ্যালিডেশন সার্টিফিকেট (OV)

ডিভি সার্টিফিকেট এর চেয়ে একটু বেশি দামি সার্টিফিকেট হলো ওভি সার্টিফিকেট। সাধারনত ই-কমার্স ওয়েবসাইটে অর্গানাইজেশন ভ্যালিডেশন সার্টিফিকেট বা ওভি ব্যাবহার করা হয়।

ডিভি সার্টিফিকেট নিজে নিজে ভ্যালিডেট করা গেলেও, ওভি সার্টিফিকেট ভ্যালিডেশন করবে কোনো একটি সার্টিফিকেট অথোরিটি (যারা সার্টিফিকেটটি ইস্যু করে)

এক্সটেন্ডেড ভ্যালিডেশন সার্টিফিকেট (EV)

এই এসএসএল সার্টিফিকেট যুক্ত ওয়েবসাইটে সবুজ লেখা সহ সবুজ তালা প্রদর্শন করে। ডিভি এবং ওভি সার্টিফিকেট এর চেয়েও এটি আরও প্রিমিয়াম এসএসএল সার্টিফিকেট। এটি ভ্যালিডেশন প্রকৃয়াও আরও জটিল। সাধারনত বড় ই-কমার্স সাইট এবং ব্যাংক ওয়েবসাইট এর জন্য এ সকল সার্টিফিকেট বেশি ব্যাবহার করা হয়।

সাবজেক্ট অল্টারনেট নেম সার্টিফিকেট (SAN)

স্যান সার্টিফিকেট এর ক্ষেত্রে একটি সার্টিফিকেট দিয়েই অনেকগুলো ডোমেইন ইনক্রিপ্ট করা যায়। এর দাম ডিভি, ওভি এমনকি ইভি সার্টিফিকেট এর চেয়েও অনেক বেশি।

ওয়াইল্ডকার্ড সার্টিফিকেট (Wildcard)

ওয়াইল্ডকার্ড সার্টিফিকেট দিয়ে একটি ডোমেইন এর আন্ডারে আনলিমিটেড সাবডোমেইনে এসএসএল সার্টিফিকেট যোগ করা যায়।

বর্তমানে এসএসএল সার্টিফিকেট একটি ওয়েবসাইট এর নিরাপত্তার প্রতিক হয়ে দাড়িয়েছে। ট্রাস্টেড এসএসএল ছাড়া ব্রাউজারে ওয়েবসাইট ওপেন করলেই ভিজিটররা সেই ওয়েবসাইট ভিজিট করতে অনুৎসাহিত বোধ করতে পারে। এছাড়া সার্চ ইন্জিনগুলোও বর্তমানে এসএসএল সহ ওয়েবসাইট গুলোকে বেশি প্রাধান্য দিচ্ছে। তাই সবদিক বিবেচনা করে আপনার ওয়েবসাইটে অবশ্যই SSL Certificate রাখা উচিৎ।

  • Facebook
  • Twitter
  • Google+
  • Linkedin
  • Pinterest

1 Comments

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This div height required for enabling the sticky sidebar