চৌকাঠ ব্লগ

নতুন জেনারেশন এর ব্লগ

GDPR এর পরে ডোমেইন প্রাইভেসি সার্ভিস কেনার কি কোনো প্রয়োজন আছে?

/
/
/
479 Views

GDPR হলো মূলত ইউরোপিয়ান ইউনিয়ন হতে নির্ধারিত তাদের জনগনের তথ্যের নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য রেগুলেশন। জিডিপিআর এর পূর্নরূপ : General Data Protection Regulation. এই নিতিমালার আওতায় বিভিন্ন সেক্টরেই তথ্যের নিরাপত্তা নিয়ে পরিবর্তন এসেছে। ডোমেইন নেম অথোরিটি ICANN ও তাদের পাবলিক তথ্য প্রকাশের বিষয়ে পরিবর্তন এনেছে। নির্দেশনা অনুযায়ী ইউরোপিয়ান দেশগুলোর জন্য তাদের সাধারন জনগনের ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন এর তথ্য পাবলিক রেকর্ড হিসেবে রাখা যাবে না। কিন্তু ICANN থেকে – কে ইউরোপিয়ান, কে অন্য দেশের তা নির্ধার করার জন্য টেকনিক্যাল পরিবর্তনের চেয়ে সকলের জন্যই ডোমেইন রেকর্ড পাবলিক রেকর্ড থেকে সরিয়ে নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

GDPR চালু হওয়ার পূর্বে ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করার পর ডোমেইন মালিক এর তথ্য whois রেকর্ড এ প্রদর্শন করতো, এতে ডোমেইন এর মালিক সম্পর্কে জানা যেত এবং প্রয়োজনে যোগাযোগ করা সম্ভব হতো। তবে এর অপব্যাবহার এর ফলশ্রুতিতে  ডোমেইন মালিকদের ইমেইল ও ফোনে অপ্রয়োজনীয় স্প্যামিং এর শিকার হতে হতো। এর হাত থেকে বাঁচতে ডোমেইন অ্যাডমিন দের কিছু ফি প্রদান করে ID Protection সার্ভিস নিতে হতো যার মাধ্যমে তাদের যোগাযোগ তথ্য হাইড করা থাকতো পাবলিক রেকর্ড থেকে।

এখন কি তাহলে আইডি প্রটেকশন এর প্রয়োজন নেই?

জিডিপিআর এর কারনে ডোমেইন এডমিন এর সাথে যোগাযোগ এর তথ্য পাবলিক ডাইরেক্টরি তে থাকছে না, এখানে শুধু ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন ডেট, এক্সপায়ার ডেট এবং কোথা থেকে রেজিস্ট্রেশন করা হয়েছে তা দেখাবে। এতে বলা যায় যে সাধারন ব্যাবহারকারীদের জন্য এখন আর ID প্রটেকশন সার্ভিস এর প্রযোজন নেই। তবে ডোমেইন রেজিস্ট্রারদের কিছু Trusted Vendor থাকে যারা ডোমেইন এর প্রাইভেট তথ্যে এক্সেস পাবে। এ ক্ষেত্রে তারা চাইলে সেই তথ্যের অপ:ব্যাবহার করতে পারে। তাই আপনি প্রাইভেসি নিয়ে খুব বেশি চিন্তিত না হলে আইডি প্রটেকশন এর বর্তমানে তেমন কোনো প্রয়োজন নেই।

অপর দিকে জিডিপিআর এর কারনে হ্যাকার ও খারাপ ওয়েবসাইটের অ্যাডমিনদের সুবিধা হতে পারে। যদিও হ্যাকাররা সাধারনত চুরি করা ID দিয়েই ডোমেইন রেজিস্ট্রেশন করে বিভিন্ন কাজ করে, কিন্তু এখন তাদের জন্য এই কাজগুলো চালিয়ে যাওয়া আরেকটু সহজ হয়ে গেল বলেই মনে করা যায়। কেননা, আইন প্রয়োগকারী সংস্থাদের এখন হ্যাকার ও জালিয়াতিবাজদের তথ্য খুঁজে পেতে আরও বেশি সময় লাগতে পারে।

আপনার ওয়েবসাইটের ডোমেইন অথোরিটি এবং এর প্রয়োজনীয়তা সম্পর্কে জানতে এই লেখাটি পড়ুন।

জিডিপিআর নিয়ে আপনার মতামত কমেন্টে জানান। লেখাগুলো কেমন লাগছে জানাতে ভুলবেন না!

  • Facebook
  • Twitter
  • Google+
  • Linkedin
  • Pinterest

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This div height required for enabling the sticky sidebar