চৌকাঠ ব্লগ

নতুন জেনারেশন এর ব্লগ

লোগো তৈরি করার জন্য ৭ টি টিপস

/
/
/
668 Views
img

নিজের ওয়েবসাইট, ব্লগ অথবা ব্যাবসায়িক প্রয়োজনে আমাদের লোগোর প্রয়োজন হয়েই থাকে। ভালো লোগো – ব্র্যান্ড প্রচারের জন্য অনেক ভাবেই সাহায্য করে। তাই লোগো আপনি নিজেই তৈরি করুন অথবা কোনো ডিজাইনার থেকে তৈরি করে নিন না কেন, লোগো তৈরির জন্য এই ৭ টি বিষয় সবসময় মাথায় রাখবেন:

আগে সঠিক লক্ষ্য স্থির করে নিন

লোগো দিয়ে আপনি কাস্টমারের কাছে ঠিক কি বার্তা পৌছাতে চাচ্ছেন – তা আগে ঠিক করে নিতে হবে। এ ক্ষেত্রে আপনার আদর্শ কাস্টমার কে, আপনার সার্ভিস এর মাধ্যমে কাস্টমারের কোন সমস্যার সমাধান হচ্ছে, লোগো দিয়ে কি ম্যাসেজ তুলে ধরতে চাচ্ছেন এবং আপনার ওয়েবসাইট এর মূল কথা গুলো কি – তা মাথায় রেখে লোগো ডিজাইন শুরু করুন।

যতটা সম্ভব সিম্পল রাখুন

লোগো যতটা সম্ভব সহজ ধরনের রাখার চেষ্টা করুন। শুরুতে এই বিষয়টি মানতে একটু কষ্ট হলেও, বিশ্বের নামি দামি যে কোনো ব্র্যান্ডের পেছনেই খুব সিম্পল একটি লোগো দেখতে পাবেন। সিম্পল লোগোর পেছনে অবশ্যই অনেক সময় এবং চিন্তা ভাবনা দিয়ে সঠিক ম্যাসেজ পৌছানোর ব্যাবস্থা করতে হবে।

লোগোর সাথে সম্পৃক্ত আইডিয়া যেন বড় হয় – তা খেয়াল রাখুন

লোগো শুধু আপনার ব্যাবসার বর্তমান অবস্থানই না, ভবিশ্যতে বৃদ্ধির সাথেও যেন তাল মেলাতে পারে তেমন বড় একটি আইডিয়া নিয়ে লোগো ডিজাইন করতে হবে।

আইডিয়া বড় হওয়ার প্রসঙ্গে আরেকটি বোনাস টিপস হলো লোগোটি যেন ছোট-বড় যে কোনো সাইজে বা স্ক্রিনে সহজে মানিয়ে নিতে পারে তেমন হওয়া উচিৎ। এ জন্য বিভিন্ন কাজে ব্যাবহারের জন্য লোগোর কিছুটা আলাদা ভার্শন তৈরি করতে পারেন।

রঙের সাথে মনোস্তাত্বিক সংযোগ সম্পর্কে জানুন

বিভিন্ন রং মানুষের মনে বিভিন্ন ধরনের মানোভাব তৈরি করে থাকে। এটি পরিক্ষিত সত্য। সকল ভালো ডিজাইনার এ বিষয়ে জানেন। তবে নতুন হিসেবে আপনার এই বিষয়ে কিছু পড়াশোনা করে নিতে হতে পারে (ইন্টারনেটেই সব পাওয়া যায়)!

সময়ের সাথে যেন তাল মেলাতে পারে এমন লোগো তৈরি করুন

বর্তমানে চলা ট্রেন্ডের সাথে মিলিয়ে লোগো তৈরি না করে এমন লোগো তৈরি করার চেষ্টা করুন যা সময়ের সাথে তাল মিলিয়ে চলতে পারবে। অন্য ডিজাইন থেকে ইন্সপায়রেশন নেওয়া যেতে পারে অবশ্যই, তবে নিজের প্রতিষ্টানের লোগো নিজেদের মতো করেই তৈরি করুন।

ডিজাইন করার ও করিয়ে নেওয়ার কি কি পথ রয়েছে তা জানুন

আপনার যদি নিজেই লোগো তৈরি করার ইচ্ছা এবং আইডিয়া থাকে তাহলে নিজেই তৈরি করতে পারেন। কিন্তু এটিও মাথায় রাখবেন যে ইন্টারনেটে হাজার হাজার ভালো ডিজাইনার আপনার জন্য লোগো তৈরি করে দিতে প্রস্তুত। বিভিন্ন মার্কেটপ্লেস যেমন: ৯৯লোগো, আপওয়ার্ক, ফাইভার – এসব থেকে ফ্রিল্যান্সারদের দিয়ে আপনি আপনার লোগো প্রফেশনাল ভাবে তৈরি করিয়ে নিতে পারেন। এ ক্ষেত্রেও অবশ্যই আপনি তাদের কাছে আপনার নিজের আইডিয়া দিতে পারবেন।

নতুন কিছুর জন্য তৈরি থাকুন

একটা ডিজাইন মাথায় এলে শুধু সেই একটি নিয়ে পড়ে থাকলেই চলবে না। আপনার মাথায় আইডিয়া এসেছে মানেই যে সেটি ভালো আইডিয়া- তা না ও হতে পারে। প্রথমেই কোনো আইডিয়া ভালো লেগে গেলেও প্রকৃতপক্ষে তা তেমন কাজ না-ও করতে পারে। আবার প্রথমদিকে যেই আইডিয়া তেমন ভালো মনে হয়নি, সেই আইডিয়াও অনেক কাজের হতে পারে। তাই সবকিছুই ভালো করে খেয়াল করুন।

লোগো তৈরির প্রকৃয়াতে অনেক সময় এবং ধৈর্য্য নিয়ে কাজ করতে হয়। আমার এই লেখাটি ডিজাইনে পুরোপুরি নতুনদের জন্য লেখা। লোগো ডিজাইনের সময় আপনি নিজে কোন বিষয়টিকে গুরুত্বপূর্ন মনে করেন তা কমেন্টে জানাতে ভুলবেন না! ভালো থাকুন

  • Facebook
  • Twitter
  • Google+
  • Linkedin
  • Pinterest

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This div height required for enabling the sticky sidebar