চৌকাঠ ব্লগ

নতুন জেনারেশন এর ব্লগ

ব্যাবসায়িক প্রচারের জন্য – ব্লগিং ভালো নাকি সোস্যাল মিডিয়া?

/
/
/
467 Views
img

যে কোনো ব্যাবসা প্রতিষ্ঠানের জন্য একটি অনলাইন কমিউনিটি গড়ে তোলাটা খুব জরুরি একটি বিষয়। এতে কাস্টমারদের সেই কোম্পানি সম্পর্কে পজিটিভ ধারনা সৃষ্টি হয় এবং ব্র্যান্ড লয়্যালিটি বাড়ে। কিন্তু বর্তমানে ব্র্যান্ডের প্রচারের জন্য শুধুমাত্র সোস্যাল মিডিয়ায় মনোযোগ বেশি দেখা যাচ্ছে। প্রতিষ্ঠানের ওয়েবসাইট এবং ব্লগে সচারচর নতুন আপডেট পাওয়া যায় না। কিমিউনিটি গড়ে তোলার জন্য সোশ্যাল মিডিয়া অবশ্যই ভালো উপায় তবে কখনোই একমাত্র উপায় হওয়া উচিৎ নয়। কেন একমাত্র উপায় হওয়া উচিৎ নয়? এর কারন হলো:

সোস্যাল মিডিয়ার ব্যাবহারকারীর মনোযোগ বিক্ষিপ্ত থাকে

সোস্যাল মিডিয়াতে ব্যাবহারকারীর সামনে আপনার পোস্টের পাশাপাশি শত শত পেজের পোস্ট এবং ব্যাক্তিগত আপডেট থাকে। এসবের ভিড়ে গ্রাহকের মনোযোগ সবদিকে বিক্ষিপ্ত থাকে। তাই আপনার ব্যাবসায়িক খবরাখবর যাদের কাছে পৌছাতে চাচ্ছেন, তারা আপনার ম্যাসেজ খেয়াল না-ও করতে পারে।

সোস্যাল মিডিয়া হলো অনলাইন ভিজিটর পাওয়ার একটি রাস্তা মাত্র

আপনার অনলাইন ভিত্তিক ব্যাবসা বা অফলাইন ব্যাবসার অনলাইন প্রচার – লক্ষ যাই হোক না কেন, আপনার ওয়েবসাইটে ভিজিটর পাওয়ার অনেক অনেক রাস্তা যেমন ব্লগিং, ইমেইল মার্কেটিং, সার্চ রেজাল্ট, রেফারেল, পেইড ট্রাফিক ইত্যাদি রয়েছে। তার মধ্যে সোস্যাল মিডিয়া হলো একটি মাত্র রাস্তা। এ রাস্তা ব্যাবহার করতে যে অন্য কোনো রাস্তায় ভিজিটর আনতে পারবেন না, তা ঠিক নয়। বরং অনেকগুলো রাস্তা দিয়ে যখন ভিজিটর আসবে, তখন একটি রাস্তা বন্ধ হয়ে গেলেও (যেমন গুগল প্লাস বন্ধ হয়ে গিয়েছে) আপনার হিসাবের খাতা একদম শুন্য হয়ে যাবে না। ভালো মানের কনটেন্ট ক্রিয়েট করে ব্লগের মাধ্যমে সার্চ ইন্জিন থেকেও অনেক বেশি ভিজিটর পাওয়া সম্ভব, এবং ব্লগ কনটেন্ট এর কার্যকারিতা সোস্যাল মিডিয়া পোস্টর মতো ক্ষনস্থায়ী হয় না।

ব্যাবসার মূল হিসেবে ওয়েবসাইটকেই ধরা হয়

আপনার প্রতিষ্ঠানের নির্ভরযোগ্যতা অনেক ক্ষেত্রেই আপনার ওয়েবসাইট এর মাধ্যমে মাপা হয়। কেউ যদি আপনার ওয়েবসাইট বা ব্লগ ভিজিট করে দেখে তা কয়েক মাস বা বছরখানেক ধরে কোনো আপডেট করা হচ্ছে না, তাহলে তারা ধরে নিতে পারে যে এ প্রতিষ্ঠানের প্রানশক্তির অভাব রয়েছে। ব্লগ যদি হয় ধু-ধু মরুভূমি, তা কখনোই পজিটিভ বার্তা বহন করে না।

নিত্য নতুন ব্লগ কনটেন্ট আপনার প্রফেশনালিজমকেই তুলে ধরে

যখন আপনার ওয়েবসাইটে নিয়মিত আপনার সংস্লিষ্ট সেক্টর সম্পর্কিত আপডেট নিয়ে লেখা হয়, হখন স্বভাবতই ভিজিটররা আপনার ওয়েবসাইট সম্পর্কে আরও ভালো ধারনা করতে শুরু করবে।  যে কোম্পানি ফ্রি তে ভালো সার্ভিস ও তথ্য দিয়ে যাচ্ছে, তাদের পেইড সার্ভির আরও কতটা ভালো হতে পারে তা মানুষ জানতে আগ্রহী হবে। এভাবেই গ্রাহক সংক্ষ্যা বৃদ্ধি পাবে।

তাই আপনার যদি কোনো ওয়েবসাইট থেকে থাকে, তাহলে অবশ্যই এখন থেকেই ব্লগিং শুরু করুন।

  • Facebook
  • Twitter
  • Google+
  • Linkedin
  • Pinterest

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *

This div height required for enabling the sticky sidebar